সোমবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২২, ১১:৩৭ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম ::
একজন রেমিটেন্স যোদ্ধা প্রতারণার শিকার বন্দর মুছাপুর চর ইসলামপুর তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে অসহায় পরিবারের উপর হামলা-থানায় অভিযোগ জনস্বার্থে মেঘনা নদী খননের এলাকাবাসীর বিআইডব্লিউটিএ এর কাছে আবেদন সোনারগাঁয়ে সাবেক চেয়ারম্যানের পুত্র ও তার সহযোগীকে ইয়াবাসহ গ্রেফতার রূপগঞ্জে বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের ৪ কর্মী গ্রেফতার নারীর উন্নয়নে বস্ত্রখাত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে: মন্ত্রী গাজী ফতুল্লায় গার্মেন্টস কর্মীকে ধর্ষণ, যুবক গ্রেফতার না.গঞ্জ সদরে বিএনপি-ছাত্রদলের ৩ নেতাকর্মী গ্রেফতার নির্দেশ পেলে আবারও নির্বাচন করবো: সেলিম ওসমান সোনারগাঁয়ে প্রাথমিক শিক্ষার গুণগত মান উন্নয়নে সভায় এম‌পি খোকা

শোক দিবসের মোনাজাতে আ.লীগ নেতার নাম না বলায় হট্টগোল

  • আপডেট সময় সোমবার, ১৬ আগস্ট, ২০২১, ৪.৪৬ এএম
  • ২৩৯ বার পড়া হয়েছে

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৬তম শাহাদাতবার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে পিরোজপুরে শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন শেষে দোয়া-মোনাজাত নিয়ে আওয়ামী লীগের দু’গ্রুপের মধ্যে হট্টগোল ও ধাক্কাধাক্কি হয়েছে। পরে দোয়া-মোনাজাত পরিচালনা করেছেন জেলা প্রশাসক আবু আলী মো. সাজ্জাদ হোসেন।

রোববার (১৫ আগস্ট) বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে সরকারি-বেসরকারি অফিস, রাজনৈতিক দল, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের পুষ্পমাল্য অর্পণ শেষে বেলা পোনে ১১টার দিকে শহরের বঙ্গবন্ধু চত্বরে এ ঘটনার পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে তিনি দ্বিতীয়বার মোনাজাত পরিচালনা করেন।

জানা যায়, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ ও সেখানে দোয়া-মোনাজাতের আয়োজন করা হয়। সেখানে উপস্থিত ছিলেন জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপার, আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ, ছাত্রলীগসহ বিভিন্ন সংগঠনের নেতাকর্মীরা।

জাতির জনকের প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ শেষে শুরু হয় দোয়া-মোনাজাত। দোয়া-মোনাজাত পরিচালনা করেন জেলা ইমাম সমিতির সভাপতি মাওলানা মীর মো. ফারুক আব্দুল্লাহ। দোয়া-মোনাজাতের একপর্যায় শুরু হয় তুমুল হট্টগোল।

দোয়া-মোনাজাতে স্থানীয় এমপির নাম উল্লেখ করা হলেও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি-সম্পাদকের নাম উল্লেখ না করার অভিযোগ তুলে হট্টগোল শুরু করে আওয়ামী লীগের একাংশ। এ নিয়ে শুরু হয় দু’পক্ষের মধ্যে বাগবিতণ্ডা ও ধাক্কাধাক্কি।

সেখানে উপস্থিত জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপার পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা করেন। পরে জেলা প্রশাসক আবু আলী মো. সাজ্জাদ হোসেন দ্বিতীয় দফায় নিজে দোয়া-মোনাজাত পরিচালনা করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন।

এ ব্যাপারে জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এমএ হাকিম হাওলাদার ও জেলা ইমাম সমিতির সভাপতি মাওলানা মীর মো. ফারুক আব্দুল্লাহর সঙ্গে যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।
জেলা প্রশাসক আবু আলী মো. সাজ্জাদ হোসেন বলেন, প্রথম মোনাজাতে দু-একজন নেতার নাম না বলায় বিষয়টি নিয়ে কেউ কেউ প্রতিবাদ করেন। এ কারণে আমি দ্বিতীয়বার মোনাজাত করে সবার নাম বলি।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved © 2021 rudrabarta24.net
Theme Developed BY ThemesBazar.Com