মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪, ০৮:০০ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম ::
বন্ধু গোপালকে শেষ কী বার্তা পাঠিয়েছিলেন নিখোঁজ এমপি আনার বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান শান্তি পদক নীতিমালা, ২০২৪-এর খসড়া অনুমোদন ঢাকায় ব্যাটারিচালিত রিকশা চলবে, প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ : কাদের অস্ট্রেলিয়া দলে যুক্ত হচ্ছেন ম্যাকগার্গ ও শর্ট ডিপজলের সম্পাদক পদে দায়িত্ব পালনে নিষেধাজ্ঞা ইরানের প্রেসিডেন্টের হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত: রাইসি ছাড়াও নিহত হলেন যারা আমাদের সমাজে ভালো মানুষের খুব অভাব : সিভিল সার্জন সিদ্ধিরগঞ্জে মোটরসাইকেলসহ ছিনতাইকারী গ্রেপ্তার বন্দরে দিনমজুরকে কুপিয়ে জখম, আ’লীগ নেতাসহ ৮ জনের বিরুদ্ধে মামলা হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের র‍্যালি অনুষ্ঠিত

বিএনপির নেতাকর্মীদের রোষানলে মশিউর রনি দৌড়ে পালাচ্ছে !

  • আপডেট সময় বৃহস্পতিবার, ২৫ মে, ২০২৩, ৩.৩৬ এএম
  • ১৩৯ বার পড়া হয়েছে

নারায়ণগঞ্জ মহানগর বিএনপির পথযাত্রা কর্মসূচির ব্যানারে দাঁড়ানোকে কেন্দ্র করে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভীর সামনেই মহানগর বিএনপির নেতাকর্মীদের রোষানলে পড়েন জেলা যুবদলের সদস্য সচিব মশিউর রহমান রনি।

মহানগর বিএনপির নেতাকর্মীদের রোষানলে পড়ে এক পর্যায়ে মশিউর রনি জেলা যুবদলের সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রফিকুল ইসলাম রফিকসহ নেতাকর্মীদের হাতাহাতি ও বাগবিতণ্ডায় জড়িয়ে পড়ে। পরে বিএনপি’র সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী ও মহানগর বিএনপির নেতাদের হস্তক্ষেপে পরিস্থিতি শান্ত হয়।

 

এদিকে মহানগর বিএনপির পদযাত্রা কর্মসূচী শেষে সন্ধ্যায় মহানগর বিএনপির নেতাকর্মীরা মিশনপাড়া এলাকায় অবস্থান করেছিলেন। এসময়ে হঠাৎ জেলা যুবদলের সদস্য সচিব মশিউর রহমান রনি’র নেতৃত্বে ৩০/৪০ জন লোকজন নিয়ে জেলা যুবদলের সাবেক যুগ্ম সম্পাদক রফিকুল ইসলাম রফিকের উপর অতর্কিত হামলায়।

 

পরে রফিকও পাল্টা ধাওয়া করলে দুই গ্রুপের মধ্যে ব্যাপক সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এসময়ে মশিউর রহমান রনির ভাগিনাসহ ৮জন মারাত্মভাবে জখম হয়েছে। সংঘর্ষের এক পর্যায়ে রফিকের লোকজন রনিকে দাওয়া করলে নেতাকর্মীদের রেখেই দৌড়ে পালিয়ে যান জেলা যুবদলের সদস্য সচিব মশিউর রহমান রনি।

 

পরবর্তীতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে মশিউর রনির দৌড়ের ছবি ভাইরাল। এছাড়াও বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভীর সামনেই মশিউর রহমান রনি দফায় দফায় বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীদের সাথে তর্কে জড়িয়ে পড়ে। এক পর্যায়ে নেতাকর্মীদের রোষানলে পড়ে রনি স্থান ত্যাগ করেছে বলে জানা গেছে।

জানাগেছে, গত মঙ্গলবার (২৩ মে) বিকেলে নারায়ণগঞ্জ মহানগর বিএনপির পদযাত্রা কর্মসূচী শুরুর পূর্বে আড়াইহাজারের বিএনপি নেতা সুমন ও জেলা যুবদলের সদস্য সচিব মশিউর রহমান রনির মধ্যে মহানগর বিএনপি নেতাকর্মীদের বাগবিতণ্ডা এবং ধস্তাধস্তির এক পর্যায়ে হাতাহাতি ও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

 

এসময়ে প্রধান অতিথি বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী জেলা যুবদলের সদস্য সচিব মশিউর রহমান রনিসহ তার নেতাকর্মীদের মাইক হাতে নিয়ে বার বার থামানোর চেষ্টা করেও ব্যর্থ হয়।

এসময়ে জেলা যুবদলের সাবেক যুগ্ম সাধারণ রফিকুল ইসলাম রফিকের সাথেও মশিউর রনির বাগবিতণ্ডা ধস্তাধস্তির ঘটনা ঘটে। এক পর্যায়ে রিজভী ও বিএনপি’র নেতাকর্মীদের হস্তক্ষেপে পরিস্থিতি শান্ত করে রিজভী বক্তব্যে রাখেন।

বিশৃঙ্খলা প্রসঙ্গ টেনে এ সময় বক্তব্যের এক অংশে প্রধান অতিথি ও দলের সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেন, সবাই শান্তিপূর্ণভাবে দাঁড়াবেন। আপনারা কেউ ঝগড়াঝাঁটি করবেন না। আমি অনেককে দেখেছি, চিনেছি। তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আরও জানাগেছে, কেন্দ্র ঘোষিত কর্মসূচির অংশ হিসাবে নারায়ণগঞ্জ মহানগর বিএনপির পদযাত্রায় প্রধান অতিথি ছিলেন বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

মহানগর বিএনপির কর্মসূচিতে দাওয়াত না পেয়েও রিজভীর আসার খবর শুনে মহানগর বিএনপির অনুষ্ঠানে আসেন বিএনপি নেতা বদরুজ্জামান খসরুর পুত্র সুমন। আর সাথে নিয়ে আসেন জেলা যুবদলের সদস্য সচিব মশিউর রহমান রনি তার অনুসারীদেরকে ।

 

রিজভী আসা মাত্র সুমন এসে মহানগর বিএনপির ব্যানারের সামনে এসে দাড়িয়ে পড়ে। এসময়ে মহানগর বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক আনোয়ার হোসেন আনু তাকে ব্যানার সামনে থেকে সরে যেতে বলেন। এসময়ে মশিউর রহমান এসে আনোয়ার হোসেন আনুর সাথে তর্কে জড়িয়ে পড়ে।

আনু বলেন সে তো আমাদের মহানগর বিএনপি কেউ না তাহলে সে কোনো ব্যানারের সামনে দাঁড়াবে। আর অনুষ্ঠান হলে মহানগর বিএনপির জেলা তো না । সে কেনো আসবে এবং ব্যানারে সামনে দাঁড়াবে। তবে সুমনের জন্য মানতে নারাজ রনি।

এরপর মহানগর বিএনপির নেতাকর্মীরা তাতে প্রতিবাদ করলে মশিউর রনির সাথে কথা কাটাকাটি ও ধস্তাধস্তির ঘটনা ঘটে। এক পর্যায়ে রিজভীর নির্দেশে বিএনপি নেতা আজাদ গিয়ে মহানগর বিএনপির নেতাকর্মীদের বুঝিয়ে সুমনকে ব্যানারে দাঁড়াতে দিতে বলে।

মহানগর বিএনপির নেতাকর্মীরা বিএনপি আজাদের কথায় সুমনকে ব্যানারে দাঁড়াতে দেয়। এরপরও সুমনের জন্য রনি মহানগর বিএনপির নেতাকর্মীদের সঙ্গে তর্ক করতেই থাকেন।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved © 2021 rudrabarta24.net
Theme Developed BY ThemesBazar.Com

sakarya bayan escort escort adapazarı Eskişehir escort