বুধবার, ২৯ মে ২০২৪, ০৮:২২ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম ::
ইহরাম অবস্থায় কাপড় পরিবর্তন করা যাবে? সরকার তারেককে ফিরিয়ে এনে অবশ্যই আদালতের রায় কার্যকর করবে : প্রধানমন্ত্রী ফিলিস্তিনকে রাষ্ট্রের স্বীকৃতির প্রভাব কী হতে পারে? মায়ের ওড়না শাড়ি বানিয়ে পরলেন জেফার, দেখালেন চমক পরিবারসহ বেনজীরের আরও ১১৩ স্থাবর-অস্থাবর সম্পত্তি ক্রোকের নির্দেশ হায়দরাবাদকে গুঁড়িয়ে, উড়িয়ে কলকাতা চ্যাম্পিয়ন ফতুল্লায় রহিম হাজী ও সামেদ আলীর গ্রুপে সংঘর্ষ, ভাংচুর, আহত ১৫ সোনারগাঁয়ে নির্বাচন পরবর্তী প্রতিহিংসায় শতাধিক ফলজ গাছ কর্তন মুছাপুরে স্বর্ণকার অজিতের প্রেমের ফাঁদে সর্বশান্ত প্রবাসী নারী বন্দরে বিভিন্ন মামলার ২ সাঁজাপ্রাপ্ত আসামি গ্রেপ্তার

না.গঞ্জে মদ উদ্ধারের ঘটনায় ইউপি চেয়ারম্যানকে আত্মসমর্পণের নির্দেশ

  • আপডেট সময় শনিবার, ৬ আগস্ট, ২০২২, ৪.০২ এএম
  • ২৫৭ বার পড়া হয়েছে

নারায়ণগঞ্জে দুই কনটেইনার বিদেশি মদ উদ্ধাদের ঘটনায় মুন্সিগঞ্জের শ্রীনগরের ষোলঘর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আজিজুল ইসলাম ও তার ছেলে মিজানুর রহমান আশিককে বিচারিক আদালতে আত্মসমর্পণের নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। বৃহস্পতিবার হাইকোর্টের বিচারপতি জাহাঙ্গীর হোসেন সেলিম ও বিচারপতি মো. বশির উল্লাহর সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ তাদেরকে আগামী চার সপ্তাহের মধ্যে আত্মসমর্পণের নির্দেশ দেন।

আদালতে আজ তাদের আবেদনের পক্ষে শুনানিতে ছিলেন আইনজীবী ব্যারিস্টার মো. রুহুল কুদ্দুস কাজল। তার সঙ্গে ছিলেন অ্যাডভোকেট সালেকুজ্জামান। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল সারওয়ার হোসেন বাপ্পী। আবেদনকারীর আইনজীবী ব্যারিস্টার রুহুল কুদ্দুস কাজল আদেশের বিষয়টি জাগো নিউজকে নিশ্চিত করেন।

গত ২৪ জুলাই নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ থানায় এ বিষয়ে মামলা হয়। র‌্যাব-১১ এর উপ-পরিচালক মো. শাহাদাত হোসেন বাদী হয়ে এ মামলা দায়ের করেন।

মামলায় অভিযুক্তরা হলেন- মো. নাজমুল মোল্লা (২৩), সাইফুল ইসলাম (৩৪), মো. আজিজুল ইসলাম (৫৭), মিজানুর রহমান আশিক (২৪), আব্দুল আহাদ (২২), জাফর আহমেদ (৩৫), শামীম (৩২), রায়হান (৩৫), দুবাই প্রবাসী অজ্ঞাত ব্যক্তি, দিপু (২৮) এবং বাদশা (৩২)।

এর আগে র‌্যাব-১১ এর একটি আভিযানিক দল সোনারগাঁয়ের টিপুরদী এলাকায় ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে চেকপোস্ট বসিয়ে দুটি কনটেইনার জব্দ করে। এ কনটেইনার দুটি থেকে বিভিন্ন ব্র্যান্ডের ৩৬ হাজার ৮১৬ বোতল বিদেশি মদ উদ্ধার করা হয়। উদ্ধার করা মদের মূল্য ৩১ কোটি ৫৮ লাখ ৮০ হাজার টাকা। ভ্যাটসহ মূল্য দাঁড়ায় ৩৬ কোটি ৮৮ লাখ ৮০ হাজার টাকা।

র‌্যাব জানায়, এ চক্রটি দেশে টিভি ও গাড়ির পার্টস ব্যবসার আড়ালে অবৈধ মাদকদ্রব্য বিপণন নেটওয়ার্ক তৈরি করে। অবৈধ মাদক বিদেশ থেকে আনার পরে মুন্সিগঞ্জের শ্রীনগর, রাজধানীর বংশাল ও ওয়ারীতে ওয়্যার হাউসে রাখতো। পরে সুবিধাজনক সময়ে এসব মাদক বিক্রি করতো। কখনো কখনো ট্রাক ও কনটেইনার থেকে সরাসরি ক্রেতাদের কাছে মাদক সরবরাহ করা হতো।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved © 2021 rudrabarta24.net
Theme Developed BY ThemesBazar.Com

sakarya bayan escort escort adapazarı Eskişehir escort