রবিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৮:৫০ পূর্বাহ্ন

সিলেটে-৩ আসনে বিজয়ী আওয়ামী লীগের হাবিব

  • আপডেট সময় রবিবার, ৫ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ৪.৪৩ এএম
  • ১২ বার পড়া হয়েছে

সিলেট-৩ আসনের উপনির্বাচনে ভোটের লড়াইয়ে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হাবিবুর রহমান হাবিব বিজয়ী হয়েছেন। প্রায় ৬৫ হাজার ৩১২ ভোটের ব্যবধানে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী জাতীয় পার্টির আতিকুর রহমান আতিককে পরাজিত করে সাংসদ নির্বাচিত হন এই রাজনীতিবিদ।

আজ শনিবার রাতে উপনির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তা ও সিলেটের জেলা প্রশাসক এম কাজী এমদাদুল ইসলাম তাঁকে বেসরকারিভাবে জয়ী ঘোষণা করেন।

প্রাপ্ত ফলাফলে সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য হাবিবুর রহমান হাবিব পেয়েছেন ৯০ হাজার ৬৪ ভোট। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য আতিকুর রহমান আতিক পেয়েছেন ২৪ হাজার ৭৫২ ভোট।

অপর প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী বিএনপির বহিষ্কৃত স্বতন্ত্র প্রার্থী শফি আহমদ চৌধুরী পেয়েছেন ৫ হাজার ১৩৫ ভোট। আর বাংলাদেশ কংগ্রেসের জুনায়েদ মোহাম্মদ মিয়া পেয়েছেন ৬৪০ ভোট।

এর আগে সিলেটের দক্ষিণ সুরমা-ফেঞ্চুগঞ্জ ও বালাগঞ্জ উপজেলা নিয়ে গঠিত এ আসনের ১৪৯টি কেন্দ্রে দিনভর শান্তিপূর্ণ পরিবেশেই শেষ হয় ভোট গ্রহণ।

নির্বাচনে বিজয়ী হাবিবুর রহমান হাবিব বলেন, এবিজয় শুধু আমার নয়, বিজয়ের ভাগীদার তিন উপজেলার প্রতিটি নাগরিক। নৌকার বিজয় আওয়ামী লীগের প্রত্যেক নেতা-কর্মীর। সবার নিরলস প্রচেষ্টার ফলেই নৌকার বিজয় সুনিশ্চিত হয়েছে। এবিজয়ের মধ্য দিয়ে নান্দনিক দক্ষিণ সুরমা-ফেঞ্চুগঞ্জ ও বালাগঞ্জ গড়ার স্বপ্ন আরও একধাপ এগিয়ে গেল। সবার সহযোগিতায় তিন উপজেলাকে উন্নয়নের রোল মডেল হিসেবে গড়ে তুলতে চাই।

হাবিব বলেন, প্রধানমন্ত্রী ও দলীয় সভানেত্রী আমার ওপর আস্থা রেখেছিলেন বলেই নির্বাচনী এলাকার মানুষ নৌকায় ভোট দিয়ে সে আস্থার প্রতিফলন ঘটিয়েছে। আমাকে নির্বাচিত করায় সকল ভোটারদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি।

এদিকে নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী পরাজিত প্রার্থী জাতীয় পার্টির আতিকুর রহমান আতিক জানান, নির্বাচনে সরকার দলীয় প্রার্থীর সমর্থকেরা লাঙলের ভোটারদের ভয়ভীতি দেখিয়ে কেন্দ্রে আসতে বাধা দিয়েছেন। নির্বাচনে নানা ভুল ত্রুটি আছে। আমি নিজেও ইভিএমে ভোট দিতে গিয়ে বিড়ম্বনায় পড়েছি। দিনরাত পরিশ্রম করেও ভোটারদের কেন্দ্রে আনা যায়নি। এর মূল কারণ আস্থাহীনতা। আগে ভোটারদের আস্থা ফেরাতে হবে, তবেই নির্বাচন সফল হবে। এ সময় তিনি নবনির্বাচিত সাংসদ হাবিবুর রহমান হাবিবকে অভিনন্দন জানান।

সিলেটের দক্ষিণ সুরমা, ফেঞ্চুগঞ্জ ও বালাগঞ্জ উপজেলা নিয়ে গঠিত সিলেট-৩ আসনে মোট ভোটার ছিল ৩ লাখ ৫০ হাজার। ভোটকেন্দ্র ১৪৯ টি।

নির্বাচনে আওয়ামী লীগের হাবিবুর রহমান হাবিব (নৌকা), জাতীয় পার্টির আতিকুর রহমান আতিক (লাঙল), বিএনপির বহিষ্কৃত স্বতন্ত্র প্রার্থী শফি আহমদ চৌধুরী (মোটরগাড়ি) এবং বাংলাদেশ কংগ্রেসের প্রার্থী জুনায়েদ মোহাম্মদ মিয়া (ডাব) প্রতীকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন।

চলতি বছরের ১১ মার্চ করোনায় আক্রান্ত হয়ে এ আসনটির সাংসদ আওয়ামী লীগ নেতা মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরী মারা যান। তারপর আসনটি শূন্য ঘোষণা করে নির্বাচন আয়োজন করে নির্বাচন কমিশন।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved © 2021 rudrabarta24.net
Theme Developed BY ThemesBazar.Com