মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০২৪, ০৯:২১ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম ::

মিরাজ খুনের পর থেকে আত্মগোপনে চলে গেছে কাউন্সিলর শাহীন

  • আপডেট সময় বুধবার, ৫ এপ্রিল, ২০২৩, ৩.৩৯ এএম
  • ৭৮ বার পড়া হয়েছে

মিরাজ খুনের ঘটনার পর থেকে আত্মগোপনে চলে গেছেন নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের ২১ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মো. শাহীন মিয়া।

বিচ্ছিন্ন পাওয়া যাচ্ছে তার মুঠো ফোনের নম্বরটিও (০১৯২৬০৪৭১২৪)।

ওয়ার্ড সচিব মো. এনামুল হক লাইভ নারায়ণগঞ্জকে বলেছেন, কাউন্সিলর মো. শাহীন মিয়াকে রাত থেকেই খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। তাকে ফোন করেও পাওয়া যাচ্ছে না। কোথায় আছে সেটাও বলতে পারছেন কেউ। সকলে কার্যালয়ের সামনে পুলিশ আসায় আমরাও কেউ সেখানে যাইনি।

গত ৩ এপ্রিল সন্ধ্যায় নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন এলাকার রুপালী আবাসিক এলাকায় ওয়ার্কশপ ব্যবসায়ী মেরাজুল ইসলাম জয় ও আল আমিনের উপর হামলার ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় আহত অবস্থায় মিরাজ ও আল আমিনকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়া হয়। চিকিৎসকের পরামর্শে পরে ঢাকা মেডিকেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে রাত ৯টার দিকে মৃত্যু বরণ করে মিরাজ। আশঙ্কাজনক অবস্থায় এখনও চিকিৎসাধীন আছে আল আমিন।

আহত অবস্থায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বেডে শোয়া অবস্থায় এই ঘটনার বর্ণনা দিয়েছেন আল আমিন।

২ মিনিট ১৪ সেকেন্ডের একটি ভিডিওতে দেখা যায় আল আমিন বলেছেন, ‘রুপালি আবাসিক এলাকায় ওয়ার্কশপে মেরাজ কাজ করছিল। তখন আমি সেখানে বসে ওর সঙ্গে কথা বলছিলাম। হঠাৎ করে তিনটি গাড়ি আসে। প্রথমে কাইল্লা রানা ও রুপালি আবাসিক এলাকার মানিক এসে মেরাজকে ধরে ফেলে। পরে ২১ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর শাহীনের ভাগনে সৌরভ, পিংকি, চুইল্লা রাজু, অপু এসে আমাদের এলোপাতাড়ি কোপাতে শুরু করে। তখন আমরা বার বার ওদের জিজ্ঞাসা করছিলাম, কী হয়েছে? এ সময় কাউন্সিলরের ভাগনে সৌরভ ও চুইল্লা রাজু একসঙ্গে মিলে আমাদের কোপাতে শুরু করে।’

সিটি করপোরেশনের ২১ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর মো. শাহীন মিয়া গাড়িতে বসে হামলার নেতৃত্ব দিয়েছেন উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘হামলার সময় ২১ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর শাহীন মিয়া গাড়িতে বসে ছিলেন। আমরা যখন কোপ খেয়ে আহত অবস্থায় মাটিতে পড়ে ছিলাম, তখন কাউন্সিলর শাহীন হামলাকারীদের বলছিল, সবাই এসে পড়ো আর দেখো ওরা মরছে কিনা? তখন ওরা লাথি দিয়ে দেখছিল আমাদের প্রাণ গেছে কিনা। এ সময় আশপাশের লোকজন ছুটে আসলে তারা গাড়ি নিয়ে পালিয়ে যায়।’

এদিকে, বন্দর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আবু বক্কর সিদ্দিক লাইভ নারায়ণগঞ্জকে জানান, নিহতের স্বজনরা লাশ নিয়ে ব্যস্ত রয়েছে, তাই এখনও অভিযোগ দেননি। তবে, আমরা আসামীদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা অব্যহত রেখেছি। অভিযোগ দিলে মামলা গ্রহণ করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

 

 

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved © 2021 rudrabarta24.net
Theme Developed BY ThemesBazar.Com

sakarya bayan escort escort adapazarı Eskişehir escort