শনিবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১২:৫২ পূর্বাহ্ন

নারায়ণগঞ্জে খুলছে ৮৪৭ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, চলছে প্রস্তুতি

  • আপডেট সময় বুধবার, ৮ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ৫.৪১ এএম
  • ৮ বার পড়া হয়েছে

রুদ্রবার্তা২৪.নেট: আগামী ১২ সেপ্টম্বর থেকে সারাদেশের ন্যায় নারায়ণগঞ্জের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতেও শুরু হতে যাচ্ছে শ্রেণি কার্যক্রম। জেলা শিক্ষঅ বিভাগের তথ্য অনুযায়ী, দীর্ঘ দেড় বছর পর খুলবে জেলার ৮৪৭টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। তাই শিক্ষা অধিদপ্তরের দেয়া নির্দেশনা অনুযায়ী প্রতিষ্ঠানগুলো খোলার প্রস্তুতি চলছে।
জেলা শিক্ষা অফিস সূত্রে জানা যায়, নারায়ণগঞ্জ জেলায় সরকারি-বেসরকারি মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক প্রায় ৩০০টি স্কুল, কলেজ ও মাদ্রাসা রয়েছে। আরও ৫৪৭টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় রয়েছে জেলায়। এছাড়া রয়েছে অসংখ্য কিন্ডারগার্টেন। শিক্ষা অধিদপ্তরের নির্দেশনা অনুযায়ী, স্বাস্থ্যবিধি মেনে আগামী ১২ সেপ্টেম্বর খুলতে যাচ্ছে এসব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। তবে খোলার আগে শিক্ষার্থীদের জন্য প্রস্তুত করতে হবে এ সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। সেই প্রস্তুতিও ইতোমধ্যে শুরু হয়ে গেছে।
শিক্ষা অধিদপ্তরের নির্দেশনা অনুযায়ী, প্রত্যেক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রবেশ মুখসহ অন্যান্য স্থানে কোডিড-১৯ অতিমারী সম্পর্কিত ব্যানার প্রদর্শন করতে হবে, পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন, নিয়মিত তাপমাত্রা মেপে পর্যবেক্ষণ করা, ওয়াশরুম পরিষ্কার রাখা এবং পর্যাপ্ত পানির ব্যবস্থা, শিক্ষক, শিক্ষার্থী, কর্মচারী এবং অভিভাবক প্রবেশের সময় স্বাস্থ্যবিধি যথাযথভাবে প্রতিপালনের ব্যবস্থা, সঠিকভাবে মাস্ক পরিধান, সাবান বা হ্যান্ডওয়াশ দ্বারা হাত ধোয়ার ব্যবস্থা, শ্রেণিকক্ষে শিক্ষার্থীদের বসার ক্ষেত্রে স্বাস্থ্যবিধি যথাযথভাবে অনুসরণ (৩ ফুট শারীরিক দুরত্ব বজায় রাখা), প্রতিষ্ঠানের ম্যানেজিং কমিটি ও অভিভাবকদের সাথে সভা, স্বাস্থ্যবিধি যথাযথভাবে প্রতিপালনে শিক্ষকবৃন্দের সমন্বয়ে কমিটি গঠন করতে হবে।
এ সকল নির্দেশনা যর্থাথভাবে পালনের লক্ষে মঙ্গলবার (৭ সেপ্টম্বর) সকাল ১১টা থেকে বেলা ৩টা পর্যন্ত নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রশাসকের সঙ্গে জেলা শিক্ষা বিভাগের আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। এ সময় উপস্থিত ছিলেন নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রশাসক মোস্তাইন বিল্লাহ, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) এস এম মাহফুজুর রহমান, শিক্ষা ম্যাজিস্ট্রেট সানজিদা আক্তার, জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা শরীফুল ইসলাম, সহকারী জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা আফরোজা বানু, গবেষণা কর্মকর্তা নাজমুন্নাহার খানম, জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা অহীন্দ্র কুমার মন্ডল, সহকারী জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা শাহানা আফরোজ, উপজেলা মাধ্যমিক ও প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা, সহকারী মাধ্যমিক ও প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা, একাডেমিক সুপারভাইজারসহ বিভাগীয় সকল কর্মকর্তারা।
জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা শরীফুল ইসলাস প্রেস নারায়ণগঞ্জকে বলেন, ‘ডিসি সাহেবের সঙ্গে আমরা আজ সকাল ১১টা থেকে বেলা ৩টা পর্যন্ত এ বিষয় নিয়ে আলোচনা, পর্যলোচনা করেছি। সকল প্রতিষ্ঠান যেন সরকারি নির্দেশনা-স্বাস্থ্যবিধি যেমন, পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতা, জীবাণুনাশক, স্যানিটাইজেশন, মাস্ক ব্যবহার, তাপমাত্রা মেশিনসহ সকল নির্দেশনা মানে খুলতে পারি আমরা সে বিষয়ে গুরুত্ব দিচ্ছে। বিশেষভাবে সকল প্রতিষ্ঠান যেন সরেজমিনে ভিজিট করা হয়ে এ বিষয়ে গুরুত্ব দিচ্ছি।’
তিনি আরো বলেন, ‘সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান দেড় বছর বন্ধ থাকায় অনেক জায়গাতেই সমস্যা থাকতে পারে। তবে আমরা চেষ্টা করবো সব সমস্যার সমাধান করে, সরকারি নির্দেশনা মেনে প্রতিষ্ঠানগুলো খুলতে। এ লক্ষে জেলা শিক্ষা বিভাগের সকল কর্মকর্তা-কর্মচারী, প্রতিষ্ঠানে নির্দেশনা পাঠানো হয়েছে এবং আমরা কাজ করে যাচ্ছি।’

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved © 2021 rudrabarta24.net
Theme Developed BY ThemesBazar.Com