বুধবার, ০৬ জুলাই ২০২২, ০৮:৪৪ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম ::
পদ্মায় তীব্র স্রোতে ফেরি চলাচল ব্যাহত, দৌলতদিয়ায় ৩ কিমি যানজট জনগণের ভোটাধিকার রক্ষায় কাজ করছে সরকার: প্রধানমন্ত্রী ‘টেস্ট ক্রিকেটে ইংল্যান্ডের নতুন যুগ’ অপূর্বকে উত্ত্যক্ত করে বিয়ে করতে বাধ্য করেন সাবিলা নারায়ণগঞ্জে কোভিড-১৯ প্রতিরোধে সচেতনতামূলক প্রচারণা সিদ্ধিরগঞ্জে গ্যাসের দাবিতে মহাসড়কে মানববন্ধন, অবরোধ বন্দরে পশুর হাটের ইজারাদারদের সাথে থানা প্রশাসনের মতবিনিময় সভা রুপালী গরুর হাটে সেরা চমক বাদশা বাবুর দাম ১৫ লাখ সোনারগাঁয়ে এতিমদের মাঝে সাংসদ লিয়াকত হোসেন খোকার ৭০ লক্ষ টাকার চেক বিতরন সিদ্ধিরগঞ্জে লেগুনা মুন্নার অত্যাচারে অতিষ্ঠ বিভিন্ন ব্যবসায়ী ও পরিবহন মালিকরা

অটোরিক্সা চালকদের ক্ষোভ, সাধারণ যাত্রীদের ভোগান্তি

  • আপডেট সময় বুধবার, ১ জুন, ২০২২, ৪.১০ এএম
  • ৩০ বার পড়া হয়েছে

‘সিদ্ধিরগঞ্জ হিরাঝিল বাসা থেকে বের হয়েই একটি মিশুক গাড়ি ভাড়া করেন গার্মেন্ট শ্রমিক লিজা আক্তার, গলি থেকে বের হয়ে মেইন রোডে উঠতেই তার মিশুক গাড়ি আটককে দেয় কিছু লোকজন। জানতে পারে চাষাঢ়া-সিদ্ধিরগঞ্জ- আদমজী সড়কের অটো চালকরা রাস্তা অবরোধ করেছেন। কোন গাড়িই সামনের দিকে এগোতে দিচ্ছে না। এতে করে লিজা আক্তারের মতো আরও অনেকেই বিপাকে পড়েছেন।’

চাষাঢ়া-সিদ্ধিরগঞ্জ-আদমজী সড়কে সরেজমিন মঙ্গলবার (৩১ মে) সকাল ৭টা থেকে এই চিত্র দেখা যায়। সকাল থেকে সড়কের প্রায় ৪ কিলোমিটার পর্যন্ত তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়। শ্রমিক, চাকরিজীবী, শিক্ষার্থীসহ বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুয়ের এই ভোগান্তির সম্মুখিন হতে হয়।

অন্দোলনরত অটোরিক্সা চালক হাবিব মিয়া জানান, চাষাঢ়া থেকে আদমজী সড়কে অটো চালাই আমি। এখন আমাদের অটো নিয়ে চাষাঢ়া পর্যন্ত যেতে পারি না। মেট্রোহলের মোড় পর্যন্ত গেলেই ট্রাফিক পুলিশ আমাদের অটো আটকে দেয়। এবং আমাদের কাছে জরিমানা আদায় করে।

জসিম মিয়া নামে আরেক অটোরিক্সা চালক জানান, গত কয়েকদিন যাবত আদমজী র‌্যাব অফিসের সামনে আমাদের অটো আটকেছেন র‌্যাব-১১ সদস্যরা। তারা আমাদের সিদ্ধিরগঞ্জ লেকের রাস্তা দিয়ে চলাচল করতে বলে। লেকের পাশে সড়কের কাজ এখনো হয়নি। ওই রাস্তায় অটো নিয়ে চলানো সম্ভব। রাস্তা ঠিক হয়ে গেলে ওই রাস্তায় চালাবো।

সকাল ৭টা থেকে রাস্তা অবরোধ করে ইজিবাইক চালকরা লাঠিসোটা নিয়ে রাস্তায় অবস্থান করে এবং রাস্তায় অগ্নিসংযোগ করে। এতে করে হেঁটে যেতে হয়েছে নির্দিষ্ট গন্তব্যে। বেলা সাড়ে ১১ পরে সিদ্ধিরগঞ্জ থানা পুলিশ অটোচালকদের সাথে কথা বলে। পরে অটো চালকরা রাস্তা থেকে অবরোধ তুলে নিয়ে, যান চলাচল স্বাভাবিক করে।

সিদ্ধিরগঞ্জ থানা পুলিশের পরিদর্শক (ওসি তদন্ত) হাফিজুর রহমান মানিক বলেন, অটোচালকদের বুঝিয়ে রাস্তা থেকে সরিয়ে দিয়েছি। এখন যান চলাচল স্বাভাবিক হয়েছে। এখন থেকে মেইন রোডে অটো চলাচল করতে হলে সুশৃঙ্খলভাবে চলাচল করতে হবে। কোনোরকম বিশৃঙ্খলা করে রাস্তায় যানজটের সৃষ্টি করা যাবে না।

এদিকে, সিদ্ধিরগঞ্জ এলাকায় যান চলাচল স্বাভাবিক হলেও বিপাকে পরতে হয়েছে পাঠানটুলি থেকে চাষাড়া পর্যন্ত সড়কে। এখানে অটো চালকরা দাবি করেছেন, চিটাগংরোড থেকে অটো আসলে চাষাঢ়া ঢুকতে দেয় না পুলিশ। কিন্তু সিদ্ধিরগঞ্জে অন্য একটি সেন্ডিকেট চাষাঢ়া থেকে অটো গেলে তাদের চৌধুরী বাড়ির পরে আর অটো চালাতে দেয় না।

চাষাঢ়া-আদমজী সড়কের অটো চালক মানিক মিয়া জানান, আমরা অটোরিক্সা নিয়ে সিদ্ধিগঞ্জে গেলে, সিদ্ধিরগঞ্জের অটো চালকরা আমাদের অটো আটকে দেয়। তারা আমাদের সেই সড়কে অটো চালাতে দেয় না। তাই আমরা্ও আজ সিদ্ধিরগঞ্জের কোন অটো রিক্সা চাষাঢ়া এলাকায় ঢুকতে দিবো না।

অপর অটোরিক্সা চালক সুরজ মিয়া জানান, আমাদের অটো রিক্সা পুলিশ আটকে দেয় ও জরিমানা করে। আমরা সাড়াদিনে যা ইনকাম করি তা দিয়ে আমাদের পরিবারের রুটি রুজি। কিন্তু পুলিশ জরিমানা করলে ১৫শ’ থেকে ৩ হাজার পর্যন্ত করে। আবার সিদ্ধিরগঞ্জে গেলে আমাদের অটোরিক্সার চাকা স্ক্রু দিয়ে ফুঁটো করে দেয়। এতে আমরা দ্বিগুন জরিমানা গুনতে হয়।

সিদ্ধিরগঞ্জের অটোরিক্সা বন্ধ করে দেয়ায় বিপাকে পরেছেন সাধারণ যাত্রীরা। গন্ত্যবে পৌঁছাতে বিভিন্ন পাড়া মহল্লার ভিতর দিয়ে বিকল্প যানবাহন বেছে নেয়। এতে দ্বীগুনের চেয়ে বেশী ভাড়া গুনতে হয়েছে।

কলেজ শিক্ষার্থী আসমা আক্তার জানান, পাঠানটুলি থেকে অটোতে করে কলেজে যাই। আজ অবরোধ ছিলো কিন্তু পরীক্ষা থাকায় বাধ্য হয়ে পাড়া মহল্লার ভিতর দিয়ে কলেজে যেতে হয়েছে। আইইটি স্কুল থেকে চাষাঢ়া পর্যন্ত রিক্সা ভাড়া চেয়েছে ২শ’ টাকা। দরদাম করে ১৮০টাকায় কলেজে যেতে হয়েছে।

কালির বাজারে ঔষধ ক্রয় করতে এসেছে ইসমাইল হোসেন সীমান্ত জানান, বাবার জন্য ঔষধ নিতে এসেছি। কালির বাজার থেকে পাঠানটুলি রিক্সা ভাড়া করি। প্রথমে ২শ’ টাকা চেয়েছেন। পরে বেশ কয়েকটা রিক্সার সাথে দরদাম করে ১২০টাকায় ঠিক করি।

খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পরিদর্শন করেন নারায়ণগঞ্জ সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আনিচুর রহমান। তিনি জানান, আমরা জানতে পারি রাস্তা অবরোধ করে রেখেছেন অটোচালকরা। যেহেতু আমি নতুন আসছি তাই কোন বিশৃঙ্খলা করুক এটা আমি চাইনি। আমি তাদের (অটোচালক) সাথে কথা বলেছি। তারা রাস্তা অবরোধ করেছেন মূলত ২ পক্ষের অটো চালকদের ক্ষোভ থেকে। বর্তমানে চাষাঢ়া-আদমজী সড়কে যান চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে। কেউ যদি কোন বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করতে চায়, আমরা তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নিবো।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved © 2021 rudrabarta24.net
Theme Developed BY ThemesBazar.Com